মেনু নির্বাচন করুন
পাতা

নদ-নদী

শিব নদী তানোর উপজেলার একমাত্র নদী।  ইহা বাংলাদেশের উত্তর-পশ্চিমাঞ্চলের নওগাঁ এবং রাজশাহী জেলার একটি নদী। নদীটির দৈর্ঘ্য ৭১ কিলোমিটার, গড় প্রস্থ ৩৭ মিটার এবং নদীটির প্রকৃতি সর্পিলাকার। বাংলাদেশ পানি উন্নয়ন বোর্ড বা "পাউবো" কর্তৃক শিব নদীর প্রদত্ত পরিচিতি নম্বর উত্তর-পশ্চিমাঞ্চলের নদী নং ১০৬। নদীটির উৎসঃ আত্রাই নদী এবং মোহনাঃ বানাই নদী।

তানোর উপজেলার গোকুল গ্রামের মৎস্য জীবী আফাজ উদ্দীন কবিরাজ জানান, বর্তমান প্রজন্মের ছেলে-মেয়েরা শিব নদের বর্তমান চেহারা দেখে ভাবতেই পারবে না, এক সময় এই শিব নদের ওপর দিয়ে পাল তোলা নৌকা ও লঞ্চসহ বিভিন্ন নৌযান চলাচল করত। সেই সময়ের প্রাণচাঞ্চল্যে ভরা নৌঘাটগুলো এখন বিপন্ন। পানিশূন্যতায় সবগুলো নৌঘাট বন্ধ ও নিশ্চিহ্ন হয়ে গেছে। ফলে স্থায়ী মৎস্যজীবীরা এখন তাদের নৌকা ভাসিয়ে মাছ ধরতে পারছে না। ফলে তারা বেকার জীবন-যাপন করছে।

কৃষিতে জাতীয় বঙ্গবন্ধু পদকপ্রাপ্ত কৃষক নূর মোহাম্মদ বলেন, এই অঞ্চলের মানুষের শহর-বন্দরে যাতায়াত করার একমাত্র উপায় ছিল নৌপথ। বর্তমানে বর্ষার শুরু থেকে শেষ পর্যন্ত কোনো রকমে দু-একটি নৌযান চলাচল করতে দেখা যায়। ভরা বর্ষা মৌসুম পেরোতে না পেরোতেই নদীতে পানিশূন্যতা দেখা দেয়। একসময় স্রোতধারা এই নদীকে ঘিরে হাজারও পরিবার জীবন-জীবিকা চালিয়ে আসত। ছোট-বড় বিভিন্ন দেশীয় প্রজাতির মাছের দেখা মিলত।

তানোর সাহিত্য পরিষদের উপদেষ্টা অধ্যাপক  রহমান বলেন, এই অঞ্চলের মানুষের জেলা শহরে যাতায়াতের একমাত্র উপায় ছিল নৌপথ। সারা বছর পাল তোলা নৌকায় কিংবা লঞ্চে খুব সহজেই শিব নদের ওপর দিয়ে নওহাটা ব্রিজঘাটে পৌঁছানো যেত। কিন্তু পানি সংকটে নৌ যোগাযোগ নেই বললেই চলে।

ছবি


সংযুক্তি


সংযুক্তি (একাধিক)



Share with :

Facebook Twitter